Monday , December 18 2017
Breaking News
Home / featured / লর্ডস থেকে বার্তা, বালুরঘাটে আসছেন সৌরভ গাঙ্গুলী, উন্মোচন করবেন নিজের মূর্তি

লর্ডস থেকে বার্তা, বালুরঘাটে আসছেন সৌরভ গাঙ্গুলী, উন্মোচন করবেন নিজের মূর্তি

Nblive বালুরঘাটঃ আগামী ১৫ জুলাই বালুরঘাটে আসছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। মঙ্গলবার লর্ডসের মাঠ থেকে হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ পাঠিয়ে নিজেই সে কথা ঘোষণা করতে সীমান্ত শহরে কাউন্টডাউন শুরু।

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে বালুরঘাট স্টেডিয়ামের প্রধান গেটে বসতে চলেছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের পূর্ণমূর্তি। নিজের মূর্তি নিজের হাতে উদ্বোধন করবেন সৌরভ। এই গরিমা সম্ভবত দেশে খুব একটা নেই। তার সাক্ষী থাকতে জেলা জুড়ে বাসিন্দাদের মধ্যে সাড়া পড়ে গিয়েছে। ক্রীড়াপ্রেমী তো বটেই সাধারণ গৃহবধূ থেকে কিশোর কিশোরীদের মধ্যে উন্মাদনা তৈরি হয়েছে। বালুরঘাট শহর জুড়ে ঝুলছে সৌরভের বিরাট ছবি সহ ফ্লেক্স। রাস্তার মোড়ে লাগানো হয়েছে সৌরভের পোস্টার।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক গৌতম গোস্বামী বলেন, ফাইবার দিয়ে তৈরি প্রায় ৮ ফুট উচু সৌরভের পূর্ণাবয়ব মূর্তিটি তৈরি করেছেন শিলিগুড়ির ভাস্কর সুশান্ত পাল। কয়েক দিনের মধ্যে শিলিগুড়ি থেকে মূর্তিটি আনা হবে। লর্ডসের টেস্ট সিরিজ শেষে কলকাতা হয়ে তিনি সম্ভবত ট্রেনে মালদহ স্টেশনে নেমে গাড়ি করে বালুরঘাটে আসবেন বলে জানা গিয়েছে। উঠবেন বালুরঘাটের সার্কিট হাউসে। লাগোয়া স্টেডিয়ামে ১৫ জুলাই সকাল ১১টা নাগাদ আনুষ্ঠানিকভাবে মূর্তি উদ্বোধন করবেন তিনি।

২০০৩ সালে ব্রেসবেনে অষ্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সেঞ্চুরির পর গ্যালারির দিকে মুখ ঘুরিয়ে সৌরভের ব্যাট হাতে অভিবাদন জানানোর ভঙ্গিমা রূপ পেয়েছে মূর্তিতে। তবে বাঁহাতে উঁচু করে ধরা ব্যাট ও ডানহাতে ধরা হেলমেটের ভঙ্গিমা এক রেখে ঘোরানো মাথাকে বদলে সামনের দিকে করা হয়েছে। যাতে বালুরঘাটের স্টেডিয়ামে ঢোকার মুখে ৮ ফুটের সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে সকলে সামনে থেকে মুখ ও গোটা শরীর দেখতে পান।
বালুরঘাটেই কেন সৌরভের মূর্তি এ প্রসঙ্গে জেলা ক্রীড়াসংস্থার সম্পাদক গৌতমবাবু জানান, ভারত তথা পশ্চিমবঙ্গে এমন কয়েকজন ব্যক্তিত্বের কথা মনে পড়ে, সিএবি তাদের অনায়াসে চিরস্মরণীয় করে রাখতে মূর্তি বসাতে পারতো। প্রথম বাঙালি ওপেনার হিসেবে ক্রিকেটে পঙ্কজ রায়ের নামে গ্যালারি হয়েছে। মূর্তি বসেনি। ভারতের ফুটবল ও ক্রিকেট মানচিত্রে বিখ্যাত ক্রীড়া সংগঠক বিশ্বনাথ দত্ত। আজ যে জেলাগুলি প্রাধান্য পাচ্ছে তা বিশ্বনাথবাবুর জন্য। জগমমোহন ডালমিয়া যিনি বিশ্বের দরবারে ক্রিকেটকে পৌঁছে অর্থনৈতিকভাবে স্বচ্ছলতার পথে তুলে এনেছেন। ডালমিয়া বর্ণবৈষম্য দূর করে সাউথ আফ্রিকা, বাংলাদেশের মত দেশকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে জায়গা করে দেন।
এরপরই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। বেটিংচক্রের অভিযোগে ক্রিকেটকে মানুষ ভুলতে বসেছিল। সেই সময়ে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ভারতীয় ক্রিকেট উচ্চতার মর্যাদা পেয়েছিল। খেলার মাঠে এঁদের কারও মূর্তি নেই। বিশ্বের দরবারে বাঙালি হিসাবে নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসু, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, বিবেকানন্দ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, সত্যজিৎ রায়দের সঙ্গে সমানভাবে খেলারমঞ্চে কেউ যদি মাথা উঁচু করে থাকেন তাঁরা হলেন পঙ্কজ রায়, বিশ্বনাথ দত্ত, ডালমিয়ার পাশাপাশি অন্যতম আইকন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

এই চিন্তাভাবনা থেকে পরবর্তী প্রজন্মের কাছে চিরস্মরণীয় করে রাখতে বালুরঘাটে কিংবদন্তি ক্রিকেটার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের মূর্তি স্থাপনের ইচ্ছা গত ৬ মাস থেকে মনের মধ্যে পোষণ করে ছিলেন গৌতমবাবু। তিনি বলেন, একদিন ওঁর বাড়িতে বসে খোদ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে ওই ইচ্ছের কথা জানিয়েছিলাম। সব শুনে মহারাজ আর আপত্তি করেননি।

আরও দেখুন

মাঝ ডিসেম্বরে পড়ল শীত, কুয়াশায় আচ্ছন্ন রায়গঞ্জ। দেখুুুন ভিডিও

Nblive রায়গঞ্জঃ মাঝ ডিসেম্বরে পড়ল শীত, কুয়াশায় আচ্ছন্ন রায়গঞ্জ। দেখুুুন ভিডিও