Thursday , June 29 2017
Breaking News
Home / featured / ছিটমহলবাসীদের আন্দোলনে পাশে থাকার বার্তা দিলেন অশোক ভট্টাচার্য

ছিটমহলবাসীদের আন্দোলনে পাশে থাকার বার্তা দিলেন অশোক ভট্টাচার্য

Nblive কোচবিহারঃ ভোটবাড়ির ছিটমহল অস্থায়ী ক্যাম্পে অশোক ভট্টাচার্য। মেখলীগঞ্জের ভোটবাড়ী অস্থায়ী শিবিরের সাবেক ছিটবাসীদের পাশে থাকার আশ্বাস বামফ্রন্টের। স্থায়ী পুনর্বাসনের স্থান পছন্দ না হওয়ায় তা পরিবর্তনের দাবী গত বুধ ১৬০ জন সাবেক ছিটবাসী মেখলীগঞ্জ মহকুমা শাসকের দপ্তরের সামনে অনশনে বসেন। ছিটবাসীদের অনশন আআন্দোলন নিয়ে ব্যাপক চাপানউতোর দেখা যায় মেখলীগঞ্জে। পুলিশ লাঠিচার্জ করে শুক্রবার। তার প্রতিবাদে বাম-বিজেপি বন্ধ ডাকে মেখলীগঞ্জ পৌরসভা। গত কালকে আন্দোলন কারীদের চাপে মাথানোয়াতে দেখা যায় প্রশাসনকে।জেলা শাসক বাইরে থাকায় অতিরিক্ত জেলা শাসক কোচবিহার থেকে ছুটে এসে আশ্বাস দেয় পূনর্বাসনের জন্য যে কাজ চলছে পানিশালায় তা বন্ধ থাকবে এবং বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে।অনশন উঠলেও সাবেক ছিটবাসীদের পাশে সব সময় থাকার বার্তা দিতে ছুটে আসলেন শিলিগুড়ি পৌরনিগমের মেয়র তথা শিলিগুড়ির বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্য।গত কাল বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে মেখলীগঞ্জে সাবেক ছিটবাসীদের পাশে থাকার বার্তা দিয়ে একটি মিছিল করেন।পরবর্তীতে শিলিগুড়ির মেয়র অশোক ভট্টাচার্য, সিপিআইএমের রাজ্য কমিটির সদস্য জীবেশ সরকার,জেলা সম্পাদক তারিনী রায়,এছাড়াও জেলার নেতা প্রদীপ নাথ,শৈলেন রায় সহ ফরওয়ার্ড ব্লকের জেলা সভাপতি তথা প্রাক্তন মন্ত্রী পরেশ চন্দ্র অধিকারী মেখলীগঞ্জ মহকুমা হাসপিটালে গিয়ে লাঠিচার্জ ও অনশনে আহতদের সঙ্গে দেখা করেন।এর পর ভোটবাড়ি অস্থায়ী ক্যাম্পে গিয়ে অভাব অভিযোগ শোনেন বাম নেতারা।অশোক বাবু জানান,ছিটবাসীরা দয়ার দান চাচ্ছে না।তাদের জন্য ভারত-বাংলাদেশ সরকার চুক্তি করেছে।সেই চুক্তি মোতাবেক যারা ভারতীয় সাবেক ছিটবাসী তারা ভারতে আসার অধিকার পেয়েছে।তাদের অধিকার অনুযায়ী বাসযোগ্য জায়গায় পুনর্বাসন পাবেন।সেটার দাবীতে আমরাও পাশে রয়েছি ছিটবাসীদের সঙ্গে।আমরা ইতিমধ্যে বিধানসভার বাম সংসদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তীর মাধ্যমে মূখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছি।আমরা বিধানসভায় যেমন সাবেক ছিটবাসীদের জন্য লড়বো তেমনি মেখলীগঞ্জেও সব সময় আমাদের স্থানীয় নেতৃত্বকে পাশে পাবে।

আরও দেখুন

সমঝোতা, শর্মিষ্ঠা কুন্ডু

Nblive পোর্টজিনঃ  সমঝোতা/শর্মিষ্ঠা কুন্ডু আড়ালে আছো মেঘের দলে, ফিরতে হবে ভোরের কোলে। থাকবে কত ঘুমের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *