Home > featured > বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পালের বাড়িতে পুলিশি হামলা, মশাল জ্বেলে রাত পাহাড়া
বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পালের বাড়িতে পুলিশি হামলা, মশাল জ্বেলে রাত পাহাড়া

বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পালের বাড়িতে পুলিশি হামলা, মশাল জ্বেলে রাত পাহাড়া

বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পালের বাড়িতে পুলিশি হামলা, মশাল জ্বেলে রাত পাহাড়া

NBlive বালুরঘাটঃ পুলিশি হামলার অভিযোগ তুলে এবার ফেসবুক লাইভে সরব হরিরামপুরের বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পাল ও তার পরিবার। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র এই হামলা করিয়েছেন বলেই অভিযোগ। সোনা পালের মা এবং ভাই কংগ্রেসের হয়ে পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করাই এই হামলার অন্যতম কারন বলে দাবী। পুলিশ এই ব্যপারে কিছু জানাতে না চাইলেও জেলা তৃণমূল নেতা এই ঘটনা ও অভিযোগকে সাজানো ও মিথ্যা বলে দাবী করেছেন।

বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পালের বাড়িতে পুলিশি হামলা, মশাল জ্বেলে রাত পাহাড়া

জানা গেছে, দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হরিরামপুর ব্লকের বিতর্কিত নেতা শুভাশিস ( সোনা) পাল তৃণমূলের টিকিটে গতবার জেলা পরিষদ আসনে নির্বাচিত হয়ে পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ হয়েছিলেন। এক সময় তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্রর স্নেহধন্য হওয়ার সুবাদে তিনি তৃণমূলের জেলা সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বও পেয়েছিলেন। ক্রমে জেলা সভাপতির সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হওয়ায় সব পদ থেকে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়। অন্যদিকে হরিরামপুরে প্রভাবশালী হিসেবে পরিচিত শুভাশিস বাবুর জন্যই বিধানসভা ভোটে ওই এলাকা থেকে বিপ্লব মিত্রকে পরাজিত হতে হয়েছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।এই নিয়ে স্বাভাবিক ভাবেই দুইজনের মধ্যে দূরত্ব আরো বেড়ে যায়।

বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পালের বাড়িতে পুলিশি হামলা, মশাল জ্বেলে রাত পাহাড়া

এদিকে পঞ্চায়েত নির্বাচনে হরিরামপুরে প্রার্থী তালিকা তৈরি করেন জেলা সভাপতি। কিন্তু সেই তালিকায় আপত্তি তুলে জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে দিন কয়েক আগে সরব হন শুভাশিস বাবু। তার সঙ্গে বসে প্রার্থী তালিকা তৈরি না করে বিপ্লব মিত্র দুর্নীতি করেছেন বলে নানা মহলে দরবার করেন এলাকার ওই নেতা। এরই মধ্যে আবার শুভাশিস বাবুর মা কংগ্রেসের হয়ে কুমারগঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতি এবং ভাই বাগিচাপুর গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা করেন। শুভাশিস বাবু তৃণমূলের প্রার্থীদের পরাজিত করতে মা ভাইকে দাঁড় করিয়েছেন বলে বিপ্লব মিত্র অভিযোগ তোলেন। এছাড়া মা ও ভাই-এর প্রচার করার অভিযোগে দিন কয়েক আগে সাংবাদিক বৈঠক করে শুভাশিস পালকে তৃণমূল থেকে বহিস্কার করার কথা আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করেন জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র এবং তৃণমূল নেত্রী অর্পিতা ঘোষ।

বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পালের বাড়িতে পুলিশি হামলা, মশাল জ্বেলে রাত পাহাড়া

এরপরেই বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ফেসবুক লাইভে পুলিশি হামলার অভিযোগ তোলেন শুভাশিস ও তার পরিবার। এরপরে মোবাইলের সুইচ অফ করে দিয়েছেন ওই নেতা। সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভে এসে শুভাশিস , তার স্ত্রী এবং মেয়ে বলেন, রাতে পুলিশ তাঁদের বাড়িতে ঢুকে মারধোর করেছে। ধর্ষণ করার চেষ্টার অভিযোগও তোলেন তাঁরা পুলিশের বিরুদ্ধে। পরিবারের লোক কংগ্রেস প্রার্থী হয়েছে এই প্রতিহিংসায় তৃণমূল জেলা সভাপতি হরিরামপুর থানার আইসি সহ অনান্য পুলিশ আধিকারিকদের বাড়িতে পাঠিয়ে হামলা করিয়েছেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শোরগোল জেলার রাজনৈতিক মহলে।

বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সোনা পালের বাড়িতে পুলিশি হামলা, মশাল জ্বেলে রাত পাহাড়া

জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র বলেন, নাটক চলছে। সম্পূর্ণ সাজানো ঘটনা। প্রচারে আসতে বহিষ্কৃত শুভাশিস পাল এইসব করে বেড়াচ্ছেন। এতে তৃণমূলের ভোট ব্যংকে কোনো প্রভাব পড়বে না। এদিকে এই ঘটনার পর থেকেই এলাকার মহিলারা মশাল জ্বালিয়ে সোনা পালের বাড়ির সামনে পাহাড়ায় বসেছেন। শনিবার সকালে প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

আরও দেখুন

উৎসবে মাতল কংগ্রেস নেতৃত্ব, আতসবাজি রায়গঞ্জে

উৎসবে মাতল কংগ্রেস নেতৃত্ব, আতসবাজি রায়গঞ্জে

  NBlive রায়গঞ্জঃ পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের ফলাফল এখনও পুরোপুরি সামনে আসেনি। তবে ভোট গণনা যতই …